সুস্থ্য , সুন্দর ও ফর্সা বাচ্চা পেতে গর্ভকালীন কিছু খাবার নিয়ে আজকের আলোচনা। প্রত্যেক মা-ই চান জন্মের পর তার বাচ্চা যেন সুন্দর ত্বকের অধিকারী হয়। সাধারণত বাচ্চার শারিরিক সুস্ততা ও সৌন্দর্য নির্ভর করে বাচ্চার জন্মের পূর্বে মায়ের খাদ্যাভ্যাসের উপর। তাই প্রত্যেক মায়েরই উচিৎ গর্ভকালিন সময় পুষ্টিকর ও স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া। তাই আজকের সম্পূর্ণায় আমরা  সেই সকল ভাবি মায়েদের জানাব কিছু খাবারের গুনাগুন সম্পর্কে, যা আপনার নবজাতককে সুস্থ্য, সুন্দর এবং ফর্সা করবে।

দুধঃ

দুধে রযেছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ও মিনারেল। যা গর্ভঅবস্থায় একটি সুস্থ ও সুন্দর বাচ্চার শারিরীক ও মানসিক বিকাশে সাহায্য করে। গর্ভাবস্থায় এক জন মা যদি প্রতিদিন এক গ্লাস দুধের সাথে একটু জাফরন মিশিয়ে পান করেন তবে আশা করা যায় বাচ্চার গায়ের  রঙ্গের উজ্বলতা বৃদ্ধি পাবে।

 ডিমঃ

ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমানে প্রটিন এবং বিভিন্ন প্রকার প্রয়োজনীয ভিটামিন। এটা বৈজ্ঞানিক ভাবে প্রমানিত যে বাচ্চা জন্মের আগের তিন মাস যদি কোন মা নিয়মিত একটি করে দেশি ডিমের সাদা অংশ খান তবে তা সুস্থ ও সুন্দর  বাচ্চা জন্মদানে সহায়ক হবে।

কাজুবাদামঃ

কাজুবাদামে রয়েছে প্রচুর পরিমানে হাইকোয়ালিটি প্রটিন, ভিটামিন “ই”, ম্যাগনে সিয়াম ফাইবার, এবং দরকারি অ্যামাইনো অ্যাসিড। যা গর্ভাবস্থায় বাচ্চার মানসিক বিকাশ, হাড়ের গঠন মজবুত ও উজ্বল ত্বক পেতে সাহায্য করে।

নারিকেলঃ

নারিকেলে রয়েছে প্রচুর পরিমানে পটাসিয়াম। এটা বৈজ্ঞানিক ভাবে প্রমানিত যে নারকেলের পানি এবং সাদা শাস বাচ্চার সুন্দর ত্বক গঠনে গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা পালন করে। তাই প্রত্যেক মায়েরি উচিত নিয়ম করে গর্ভকালিন অবস্থায় নারকেলের পানি ও শাস খাওয়া। তবে মাত্রারিক্ত পরিমানে খাবেন না, এতে আপনার দেহে কোলেষ্টরলের পরিমান বেড়ে যেতে পারে।

টমেটঃ

টমেটে রয়েছে প্রচুর পরিমানে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট লাইকোপিন যা ফলকে লাল বর্ণ ধারন করে সাহায্য করে। এটা সূর্যের ক্ষতিকর আল্টাভায়োলেট রশ্মির ক্ষতি থেকে ত্বককে রক্ষাকরে। এটা প্রমানিত যে টমেট আপনার বাচ্চার গায়ের রঙ্গ উজ্বল করে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

বেদানাঃ

একটা বেদানায় রয়েছে ১০৫ গ্রাম ক্যালরি, ১২৪ গ্রাম পানি, ১.৪৬ গ্রাম প্রোটিন, ৩৯৯ মিলিগ্রাম পটাশিয়াম, ৯.৪ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি। গর্ভবতী নারীরা চিকিত্সকের পরামর্শ নিয়ে বেদানা খেতে পারেন। এতে শরীরে রক্ত-সঞ্চালন বাড়ে এবং শিশুর ব্রেইনে কোনো ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা কমে ।

একজন হবু মায়ের জন্য তার পেটের বাচ্চা অন্য রকম একটি স্বপ্ন, অন্যরকম একটি দুনিয়া। বাচ্চা জন্মের পূর্বেই মা অনেক কিছু কল্পনা করেন, অনেক কিছু ভাবেন, অনেক কথা বলেন হবু বাচ্চার সাথে। আপনার একটু সতর্কতা, একটু যত্ন, একটু কষ্টই নিশ্চিত করতে পারে আপনার বাচ্চার ভবিষ্যৎ।

রূপচর্চা, দেহের বিভিন্ন অঙ্গের যত্ন, রান্না, স্বাস্থ্যটিপস সহ মেয়েদের বিভিন্ন বিষয়ে জানতে আমাদের সাথেই থাকুন। সম্পূর্ণার ফেসবুক ফ্যান পেইজে লাইক দিয়ে নিয়মিত আমাদের পোষ্ট পেতে পারেন। আর আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে কিংবা আরও আলোচনা করতে চাইলে জয়েন করতে পারেন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে

আপনার মন্তব্য

টি মন্তব্য